আন্তর্জাতিক

চিকিৎসা না দিয়ে মুসলমানদের পেটানো উচিত: ভারতীয় চিকিৎসক

আরতি লাল চন্দানি। একজন ভারতীয় চিকিৎসক। শুধু চিকিৎসক নন, উত্তরপ্রদেশের কানপুরের গণেশশঙ্কর বিদ্যার্থী মেমোরিয়াল মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষও তিনি। ভারতে করোনাভাইরাস ছড়ানোর জন্য শুরু থেকেই মুসলমানদের দায়ী করে আসছেন। অনলাইনে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে তাকে বলতে শোনা যায়, মুসলিমদের জন্য টেস্টিং কিট, চিকিৎসা সামগ্রী নষ্ট করাটা একেবারেই অপ্রয়োজনীয়। কারণ ওরা জঙ্গি, ওদের চিকিৎসা না করে পেটানো উচিত। তার মতে, কোয়ারেন্টাইন সেন্টার নয়, বরং মুসলমানদের জায়গা হওয়া উচিৎ অন্ধকার কুঠুরিতে।

ক্ষমতাসীন বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগও তুলেছেন এই অধ্যক্ষ। মুসলমানদের এত যত্ন করে চিকিৎসা করিয়ে আসলে সংখ্যালঘুদের তোষণ করছে বিজেপি সরকার। ভারতের সঞ্চয় যে কীভাবে নষ্ট হচ্ছে এটা তারই উদাহরণ। তিনি বিষয়টি কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনকে নিজে জানিয়েছেন বলেও উল্লেখ করেন।

অনলাইনে তার এসব মন্তব্য ভাইরাল হয়ে গেছে। একজন চিকিৎসকের মুখে এই ধরনের বিদ্বেষমূলক মন্তব্য শুনে বিস্ময় প্রকাশের পাশাপাশি সমালোচনাও করছেন অনেকে। অনেকে বলেছেন, তিনি আসলে নামেই করোনাযোদ্ধা। গোটা দেশ যেখানে করোনাযোদ্ধাদের সম্মানের চোখে দেখছে। তখন তিনি একটি নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের প্রতি ঘৃণা ও বিদ্বেষ ছড়াচ্ছেন। তার এই মন্তব্য অত্যন্ত নিন্দনীয়।

সূত্র: এনডিটিভি, টাইমস অব ইন্ডিয়া।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close